যৌনতা বিষয়ে কিছু কমন প্রশ্ন ও উত্তরের কাটাছেঁড়া

&#RAJIB#& (33)

প্রশ্ন: জন্মনিয়ন্ত্রণের জন্য বীর্য্যপাতের পূর্বে যোনি থেকে লিঙ্গ বের করে আনা কতটুকু কার্যকর?

বিশেষজ্ঞ মতামত: এটাতে সবাই অভ্যস্ত হতে পারে না। কেননা যৌনমিলনের শেষ ধাপ হলো এটি। এটি খুবই কষ্টদায়ক ব্যাপার। তবে যদি আপনি সক্ষম হন জন্মনিয়ন্ত্রণের জন্য এটি সবচেয়ে আদর্শ পদ্ধতি।

আমার মতামত: আমার অর্গ্যাজম হওয়ার আগে আমি এটা কিছুতেই হতে দেবোনা। মেরে ফেলবো। তবে আমার অর্গ্যাজম হয়ে গেলে আমার সেক্স-পার্টনার এটা করতে পারে। আমার তন তাতে আপত্তি থাকবেনা।

পার্থ কী বলে: আমি পারি, কিন্তু করতে ভালো লাগেনা। কষ্ট হয়। আমার মতে, বীর্য্যপাতের পূর্বে যোনি থেকে লিঙ্গ বের করে আনার চেয়ে কনডম ব্যবহার করে কনডমের ভেতরে বীর্য্যপাত ঘটানোই ভালো। তাতে পরিপূর্ণ তৃপ্তি পাওয়া যায়।

anangaranga1

প্রশ্ন: আমি আমার স্ত্রীর কিছু নগ্ন ছবি তুলেছি যা মাঝে মধ্যেই দেখে উত্তেজিত হই। আমার স্ত্রী ব্যাপারটি পছন্দ করে না। আদতে এতে কোনো সমস্যা আছে কি?

বিশেষজ্ঞ মতামত: ঘরের স্ত্রীর নগ্ন ছবি তোলার মানে আমার কাছে পরিস্কার নয়। এটি এক ধরনের অসুস্থ্ত্যতা। আমার মনে হয় আপনার উচিত এই অভ্যাস ত্যাগ করা। কেননা আপনার স্ত্রী এটা পছন্দ করে না।

আমার মতামত: আপনার স্ত্রী পছন্দ করেনা বলেই এটা ঠিক নয়। এছাড়া এটা ঠিক না হওয়ার আর কোনো কারন নেই। আমিও পছন্দ করতাম না। কিন্তু এখন আমি সেক্স করার আগে ন্যুড ফটোসেশন দারুণ উপভোগ করি। এমনি ন্যুড ফটোসেশন রার কারনেই অনে সময় আমাদের যৌনতা দারুণ আনন্দদায়ক হয়। আপনার স্ত্রীকে এ ব্যপারে উৎসাহিত করার দায়িত্ব আপনার এবং কী পদ্ধতিতে তাকে উৎসাহিত করবেন সেটা আপনাকেই খুঁজে বের করতে হবে।

পার্থ কী বলে: পরীর সাথে সেক্স করার চেয়ে তার ন্যুড ফটোসেশন করার আনন্দই আমার কাছে বেশি মনে হয় মাঝে মাঝে। এমনকি আমরা যৌনমিলনের ভিডিও করি অনেক সময়। পরদিন সেটা আবার দেখি দু’জনে মিলে। তারপর ডিলিট করে দেই। আসলে এ ব্যপারে দু’জনের বোঝাপড়া খুব জরুরী।

anangaranga1

প্রশ্ন: যৌনমিলনে আমরা স্ত্রী ইদানীং ভাইব্রেটর পছন্দ করছেন। এটি কি স্বাভাবিক?

বিশেষজ্ঞ মতামত: ব্যাপারটি স্বাভাবিক নয়। ভাইব্রেটর নির্ভরশীলতা স্ত্রীকে কোনো এক সময় যৌনশীতল করে তুলতে পারে। আমার মনে হয় এটি পরবর্তীতে চূড়ান্ত যৌন সমস্যায় ফেলবে আপনাদের দু’জনকেই। বরং আপনার স্ত্রীকে বলুন স্বাভাবিক যৌনমিলনকে পছন্দ করতে।

আমার মতামত: ভাইব্রেটর ব্যবহার কখনোই নিয়মিত হতে পারেনা। তবে এটা হঠাৎ হঠাৎ নিশ্চয়ই হতে পারে। কেননা খাবারে যেমন ভিন্নতা প্রয়োজন পড়ে যৌনতায়ও তেমনি নানারকম অনুষঙ্গ যোগ হওয়া ভালো দিক। কিন্তু নির্ভরতা কতনোই ভালো ব্যপার নয়। আর স্ত্রী যৌনাঙ্গে পুরুষের জিহ্বার লেহন আর ঠোঁটের চাপের চেয়ে ভালো কোনো ভাইব্রেটর হতে পারে কি?

anangaranga1

প্রশ্ন: সেক্স করতে ইচ্ছে হলে রাতের খাবার খাওয়ার পর আমার স্ত্রীকে সাথে নিয়ে আমি ছাদে যাই। সেখানে তাকে আদর করি। তারপর তাকে নিয়ে রুমে এসে সেক্স করি। এটা আমার স্ত্রী পছন্দ করেনা।  বলে এটা নাকি আমার বিকৃত রুচি। আদতেও কি তাই?

বিশেষজ্ঞ মতামত: বাসার ছাদে আলো না থাকলে স্ত্রীকে আদর সোহাগ করতে পারেন। এটা দোষের নয়। তবে যেহেতু আপনার স্ত্রীর পছন্দ না, সেক্ষেত্রে না করাই ভালো।

আমার মতামত: আপনার এই “বিকৃত রুচি” আমার দারুণ পছন্দ হয়েছে। রাতের বেলায় আমার বাসায় ছাদে যাওয়ার সুযোগ নেই। তবে পার্থকে বলেছি নতুন যে বাসাটা নেবো সেটায় রাতে ছাদে যাওয়ার সুযোগ থাকতে হবে। আপনি তো শুধু স্ত্রীকে আদর সোহাগ করেন, আমি ছাদের আবছা আলোতে সেক্স করতে দারুণ উৎসাহী। একবার করেছিও। দারুণ মজা। আপনার স্ত্রী লজ্জাজনিত কারনে এটা পছন্দ করেননা। তবে আমার বিশ্বাস, একবার যদি ছাদেই পূর্ণাঙ্গ সেক্স করে ফেলে স্ত্রীকে তৃপ্ত করতে পারেন তারপর থেকে আপনার স্ত্রীর অনিচ্ছা বদলে গিয়ে আগ্রহ তৈরি হবে।

পার্থর মতামত: আমি তো আমার বউকে রাতের বেলা ছাদে নিয়ে তাকে আমার কোলে বসিয়ে কয়েকঘন্টা তার যোনিতে লিঙ্গ ঢুকিয়ে বসে থাকবো আর আদর করবো। এবার করেছিলামও, কিন্তু পারিপার্শিক সমস্যার কারনে বেশিক্ষণ থাকতে পারিনি। সেদিন আমরা দু’জনেই অনেক মজা পেয়েছিলাম।

বন্ধুরা, লেখাটি সম্পর্কে তোমার মন্তব্য লিখো..প্লিজ..: (ইমেইল এড্রেস জনসমক্ষে প্রকাশ করা হয় না।)

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: